Games

দুর্দান্ত শুরু কাজে লাগাতে ব্যর্থ লিটন-সাকিবরা, বিদায় গলের

আগের দুই ম্যাচে শুরুতেই ফেরা লিটন এদিন শুরুটা করলেন দুর্দান্ত। ক্যান্ডির মুজিব উর রহমানকে এক ওভারেই হাঁকালেন তিন চার। প্রথম ১১ বলে তার ব্যাট থেকে আসলো ২১ রান। কিন্তু শুরুটা ভালো করলেও ইনিংস বড় করতে পারলেন এই বাংলাদেশী। তার স্বদেশী সাকিব আজও বোলিং ভালো করলেও ব্যাটিংয়ে সেই পুরোনো রোগ। দুজনের একই রোগের দিনে তাদের দল গল টাইটান্স মাঠ ছেড়েছে ফাইনালে না উঠতে পারার ব্যর্থতাকে সঙ্গী করে।লঙ্কা প্রিমিয়ার লীগে আজ দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে সাকিব-লিটনের দল গল টাইটান্সকে ৩৪ রানে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে বি-লাভ ক্যান্ডি। ফাইনালে ওঠার জোড়া সুযোগ পেয়েও ব্যর্থ হলো গল। এদিন আগে ব্যাটিং করে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৫৭ রান সংগ্রহ করে ক্যান্ডি। লক্ষ্য তাড়ায় লিটনের আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে ঝড়ো শুরু পায় গল। প্রথম তিন ওভারেই গলের স্কোরবোর্ডে যোগ হয় ৩৫ রান, যার মধ্যে লিটনের একারই ছিল ১৩ বলে ২৪। কিন্তু ঝড়ো শুরু করলেও টেকেননি বেশিক্ষণ।ইনিংসের পঞ্চম ওভারে ক্যান্ডির স্পিনার ধনাঞ্জয়া ডি সিলভার বলে বোল্ড হওয়ার আগে লিটনের ব্যাট থেকে আসে ১৯ বলে ২৫ রান। যেখানে ছিল ৪টি চার। তৃতীয় উইকেট পতনের পর ব্যাটিংয়ে নামেন সাকিব। মুজিবকে দারুণ এক চার মেরে শুরু করে ভালো কিছুর ইঙ্গিতও দেন। কিন্তু ইনিংস বড় করতে না পারারা সেই পুরোনো রোগেই কাটা পড়েন তিনি। ক্যান্ডির বোলার আরাচচিগকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে মিডউইকেটে মোহাম্মদ হারিসেরহাতে ধরা পড়েন সাকিব। তার ব্যাট থেকে আসে ১৫ বলে ১৭ রান । এরপর গল টাইটানসের আর কেউ উইকেটে থিতু হতে পারেননি। ৬ নম্বরে নামা সোনাল দিনুশার ২৮ রানের ইনিংস শুধু ব্যবধানই কমাতে পেরেছে। শেষ পর্যন্ত ১২৩ রানে থামে গোলের ইনিংস।এর আগে বোলিংয়ে শুরুটা দুর্দান্ত হয়েছিল গলের। ২০ রানেই ক্যান্ডির ৩ উইকেট তুলে নিয়েছিল তারা। বল হাতে নিয়ে নিজের প্রথম ওভারেই উইকেটের দেখা পান সাকিব। স্টাম্পিংয়ের ফাঁদে ফেলে ফেরান সাহান আরাচচিগেকে। শেষ পর্যন্ত ৪ ওভারে ২৪ রান দিয়ে ১ উইকেট নেন এই অলরাউন্ডার। ক্যান্ডির হয়ে অধিনায়ক ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা ৪৮ ও দিনেশ চান্ডিমাল ৩৮ রানের ইনিংস খেলে দলকে লড়াকু ১৫৭ রানের লড়াকু সংগ্রহ এনে দেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button